শুক্রবার | ২৫ জুন, ২০২১ | ১১ আষাঢ়, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > শিক্ষাঙ্গন > ড্যামরাইল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

ড্যামরাইল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

ড্যামরাইল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ

এমডি আরাফাত আলী: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের ড্যামরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ তারিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এঘটনায় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি স্বপন মন্ডল, দাতা সদস্য বিশ্বনাথ ঘোরামী ও শিক্ষক প্রতিনিধি ইয়াছিন আরাফাত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, কালিগঞ্জের ২১ নম্বর ড্যামরাইল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ তারিকুল ইসলাম দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির সাথে জড়িয়ে পড়েন।

তিনি ২০২১ সালে প্রাক প্রাথমিক ও প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির জন্য সরকারি নিয়ম অনাম্য করে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে অর্থ গ্রহণ করেন। ওই সময়ে ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা প্রতিবাদ করলে প্রধান শিক্ষক দপ্তরির মাধ্যমে অনেকের অর্থ ফেরত দিয়েছেন তবে এখনও অনেক শিক্ষার্থী অর্থ ফেরত পাইনি।

২০১৯-২০ অর্থ বছরে ¯øীপ ফ্রান্ডবাবদ বরাদ্দকৃত ৫০ হাজার টাকা ও প্রাক-প্রাথমিক বাবদ ১০ হাজার টাকা পরিকল্পনা অনুযায়ী খরচ না করে দুর্নীতি ও অনিয়ম করেছেন। তিনি ¯øীপ কমিটি থাকার সত্বেও কমিটিকে অবগত করেননি এবং কমিটি ¯øীপ ফ্রান্ড থেকে কোন কোন খাতে খরচ করেছেন তা জানতে চাইলে তিনি তা জানাতে অনিচ্ছা প্রকাশ করেন।

২০২০ সালের অম্ফানে ক্ষতিগ্রস্থ বিদ্যালয় মেরামতের জন্য ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। কিন্তু প্রধান শিক্ষক কোন প্রকল্প কমিটি গঠন না করে সম্পূর্ণ এককভাবে অনিয়ম ও দুর্নীতির আশ্রয় গ্রহণ করে নাম সর্বস্ব কাজ করেছেন।

প্রধান শিক্ষক কনটিজেন্সি বাবদপ্রাপ্ত বরাদ্দ বিদ্যালয়ের কোন কোন খাতে খরচ করেছেন বা আদৌও খরচ করেছেন কিনা তা কমিটি অবগত নয়। তিনি বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদ কোন গুরুত্ব না দিয়ে কোন কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ছাড়াই সম্পূর্ণ অন্যায়তান্ত্রিকভাবে চলছেন। প্রধান শিক্ষক সরকারি নিয়ম অমান্য করে এককভাবে বিদ্যালয়ের চেয়ার, বেঞ্চ, রড, বই বিক্রয় করে অর্থ কোন খাতে ব্যায় করেছেন নাকি নিজে আত্মসাৎ করেছেন সেটা কমিটি অবগত নয়। এছাড়াও আরও একাধিক অভিযোগ রয়েছে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে।

এদিকে এসব বিষয়ে জানতে প্রধান শিক্ষক শেখ তারিকুল ইসলামের কাছে মুঠোফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কমিটির সদস্যরা আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ দিয়েছেন সেটি মিথ্যা।

এমতাবস্থায় ২০১৯-২০ এবং ২০২০-২১ অর্থ বছরে বরাদ্দকৃত সমুদয় অর্থের হিসাব গ্রহণসহ প্রধান শিক্ষকের অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরেজমিনে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য দাবি জানিয়েছেন কমিটিসহ এলাকাবাসী।

Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x