কালিগঞ্জে গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধূ ও বৃদ্ধের আত্মহত্যা 

কালিগঞ্জে গলায় ফাঁস লাগিয়ে গৃহবধূ ও বৃদ্ধের আত্মহত্যা 
ন্যাশনাল ডেস্ক: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে একই দিনে গলায় ফাঁস লাগিয়ে এক তরুণী গৃহবধূ ও এক বৃদ্ধ আত্মহত্যা করেছেন। তারা হলেন উপজেলার চাম্পাফুল ইউনিয়নের ইউসুপপুর গ্রামের মোজাহিদ হোসেনের স্ত্রী শারমিন খাতুন (২২) ও নলতা ইউনিয়নের দূরদরিয়া গ্রামের মৃত আমির আলী মোড়লের ছেলে বক্কার মোড়ল (৬২)।
স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, গৃহবধূ শারমিনের সাথে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের পারিবারিক কলহ চলছিলো। একপর্যায়ে বৃহস্পতিবার (১২ মে) সকালে ওই গৃহবধৃ নিজ ঘরের আড়ার সাথে ওড়নার সাহায্যে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন। খবর পেয়ে থানার উপ-পরিদর্শক নকীব পান্নু ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন।
একই দিন বিকেলে নলতা ইউনিয়নের দূরদরিয়া গ্রামের বৃদ্ধ বক্কার মোড়ল নিজ বাড়িতে রশির সাহায্যে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন।  বক্কার মোড়ল মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন বলে জানিয়েছেন পরিবারের সদস্যরা। খবর পেয়ে উপ-পরিদর্শক খবির হোসেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মৃতদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করেন।
থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ গোলাম মোস্তফা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এঘটনায় পৃথক অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।