বৃহস্পতিবার | ১৩ মে, ২০২১ | ৩০ বৈশাখ, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > দেশ ও জনপদ > কালিগঞ্জে স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

কালিগঞ্জে স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

কালিগঞ্জে স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

এমডি আরাফাত আলী: সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ উপজেলার কৃষ্ণনগর ইউনিয়নে নিজেদের স্ত্রী দিয়ে থানায় ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ দিয়ে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিজেদের স্ত্রীকে হাতিয়ার বানিয়ে দু’পক্ষ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে। এসব ঘটনা নোংরা রাজনীতির প্রতিফলন বলে মনে করছে স্থানীয়রা। ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ দিয়ে গত ২৯ এপ্রিল মামলা করেন কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের বানিয়াপাড়া গ্রামের হাফিজুল ঢালীর স্ত্রী। অভিযুক্ত ব্যক্তি হলেন একই এলাকার জমাত আলী গাজীর ছেলে কেরামত আলী গাজী।
মামলার বাদী জানান, অভিযুক্ত কেরামত আলী গাজী বিভিন্ন সময় তাকে উত্যক্ত করত। গত ২৬ এপ্রিল রাত সাড়ে ১১ টার দিকে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে ঘরের ভিতরে ঢুকে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এ সময় ভুক্তভোগীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা কেরামতের হাত থেকে রক্ষা করে। পরবর্তীতে কৃষ্ণনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এম রওশন আলীকে জানালে তিনি থানায় অভিযোগ দায়ের করতে বলেন ভুক্তভোগী পরিবারকে। তার সহায়তায় নিয়ে থানায় মামলা দায়ের করতে পারেন বলে জানান হাফিজুলের স্ত্রী।
তবে সাংবাদিকদের সামনে কেরামতের উত্যক্তের শিকার একই এলাকার কামরুজ্জানের স্ত্রী বলেন, তাকে বিভিন্ন সময় ফোন করে তাকে কুপ্রস্তাব দিতো কেরামত। এ নিয়ে তিনি চেয়ারম্যান আকলিমা পারভীনের কন্যা সাফিয়াকে জানালেও কোন প্রতিকার পাননি।
স্থানীয় রফিকুল, শাহিনসহ অনেকে জানান, হাফিজুলের স্ত্রীকে সহযোগিতা করে কেরামতের বিরুদ্ধে মামলা করায় রওশনের উপর ক্ষেপে যায় কেরামত গাজী। ধর্ষণের চেষ্টার মিথ্যা নাটক সাজিয়ে রওশনের বিরুদ্ধে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছে কেরামতের স্ত্রী। প্রকৃত ঘটনা আড়াল করে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা চালাচ্ছে কেরামত আলী এমনই জানান তারা।
স্থানীয় শোকর আলী মোড়ল জানান, হাফিজুলের স্ত্রী ও কেরামতের স্ত্রী যে অভিযোগ করেছে তা সবই মিথ্যা। নোংরা রাজনীতি করতে যেয়ে নিজেদের সম্মান রাস্তার ধুলায় মিশিয়ে দিয়েছে বলে জানান তিনি।
অপরদিকে কেরামত গাজীর স্ত্রী জানান, তার স্বামীকে মামলা থেকে অব্যহতি দিবে বলে গত কয়েকদিন আগে রাত সাড়ে ১০ টার দিকে তার বাড়িতে আসে রওশন আলী। এসময় তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় তার চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে এলে জানালা ভেঙে পালিয়ে যায় রওশন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে রওশন আলী জানান, তার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে কেরামতের স্ত্রী। কেরামতের অপকর্মের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় তার স্ত্রীকে দিয়ে থানায় মিথ্যা অভিযোগ দিয়েছে। তিনি চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এজন্য চেয়ারম্যানের মেয়ে সাফিয়া পারভীনের কাছের লোক কেরামতকে দিয়ে নোংরা রাজনীতির বহি:প্রকাশ ঘটাচ্ছে বলে জানান তিনি।
কেরামতের অপকর্মের বিষয়ে জানতে চাইলে চেয়ারম্যানের মেয়ে সাফিয়া পারভীন বলেন, কেরামত গাজী অনেক মহিলাকে কুপ্রস্তাব দিয়েছে এখন কেন বলছে? যাদের উত্যক্ত করত তারা কেন স্থানীয় চেয়ারম্যান অথবা ইউপি সদস্যকে অবিহিত করেনি এমন প্রশ্ন করেন তিনি।
এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মিজানুর রহমান জানান, দু’টি অভিযোগ পেয়েছি। ইতোমধ্যে কেরামত গাজীর বিরুদ্ধে মামলা রেকর্ড হয়েছে। অপর অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

কমেন্টস

Leave a comment

x