বৃহস্পতিবার | ৫ আগস্ট, ২০২১ | ২১ শ্রাবণ, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > গাইবান্ধা > গাইবান্ধায় ছাত্রলীগ নেতা হত্যা: চার জনের নাম উল্লেখ করে মামলা 

গাইবান্ধায় ছাত্রলীগ নেতা হত্যা: চার জনের নাম উল্লেখ করে মামলা 

গাইবান্ধায় ছাত্রলীগ নেতা হত্যা: চার জনের নাম উল্লেখ করে মামলা 
মাসুম বিল্লাহ,গাইবান্ধা: গাইবান্ধার ফুলছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আশিকুর রহমান রকি (২২) কে ছুরিকাঘাতে হত্যায় ঘটনায় কাঞ্চনকে প্রধান আসামিসহ তিন জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাত আরও ৭/৮ জনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে।
সোমবার(১২ জুলাই) দুপুরে নিহতের বড়ভাই আতিকুর রহমান সরকার বাদী হয়ে সদর থানায় এই মামলা দায়ের করেন। মামলার এজাহারে পুর্ব শক্রতার জের ধরে পরিকল্পিতভাবে এই হত্যাকান্ড ঘটানো হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। গাইবান্ধা সদর থানার মামলা নম্বর-৮।
বিষয়টি নিশ্চিত করে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহফুজুর রহমান জানান, দুপুরে নিহতের বড় ভাই বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছেন। এতে চারজন নামীও ছাড়াও ৭-৮ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছে আসামিরা। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। পূর্ব বিরোধের জের ধরে আসামিরা রকিকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। তবে পুরো ঘটনা তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানানোর কথা জানান ওসি।
এদিকে ফুলছড়ি উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এইচ এম আশিকুর রহমান রকিকে ছুড়িকাঘাতে হত্যার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার এডভোকেট ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি ও বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন। এছাড়াও উপজেলা আ’লীগ, যুবলীগ ও জেলা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকেও বিবৃতি দেওয়া হয়েছে।
অন্যদিকে, রকি হত্যার ঘটনায় ক্ষুব্ধ স্বজন, দলীয় নেতাকর্মীসহ এলাকাবাসি। তারা বলছেন, পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে  ছাত্রনেতা রকি। দ্রুত হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্ত্রাসী ও দাদন ব্যবসায়ী কাঞ্চনসহ সব আসামিদের গ্রেফতার করে তাদের ফাঁসির দাবি জানান তারা। এছাড়া রকি হত্যার প্রতিবাদ ও বিচার দাবিতে শোকসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে জেলা ও উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।
এর আগে গতকাল রবিবার রাত ১০ টার দিকে আশিকুর রহমান রকি ও তার দুই সহযোগী গাইবান্ধা শহর থেকে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ি ফিরছিলেন। তারা গাইবান্ধা-বালাসী সড়কের পুর্বপাড়া হালিম বিড়ি ফ্যাক্টরির সামনে পৌছলে রকি ও তার দুই সহযোগীর পথরোধ করে  মারপিট শুরু করে। এক পর্যায়ে দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আশিকুর রহমানকে আঘাত করলে এতে রকি গুরুতর আহত হয়ে মাটিতে পড়ে যান । পরে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। এরপর স্থানীয় লোকজন তাদের তিনজনকে উদ্ধার করে গাইবান্ধা জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক রকিকে মৃত ঘোষণা করেন এবং রকির দুই সহযোগীকে সোহেল মিয়া ও প্লাবনকে ভর্তি করা হয়।
ময়নাতদন্ত শেষে আজ সোমবার দুপুরে রকির মরদেহ  উপজেলার কঞ্চিপাড়া ইউনিয়নের মধ্য কঞ্চিপাড়া নিজ বাড়িতে নিয়ে যায় স্বজনরা। বাদ আছর তার জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মরদেহ দাফন করা হয়।
Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x