মঙ্গলবার | ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১ | ৬ আশ্বিন, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > featured-slider > তাজিকিস্তানের উদ্দেশে আফগানিস্তান ছাড়লেন গনি

তাজিকিস্তানের উদ্দেশে আফগানিস্তান ছাড়লেন গনি

তাজিকিস্তানের উদ্দেশে আফগানিস্তান ছাড়লেন গনি

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি তাজিকিস্তানের উদ্দেশ্যে দেশ ত্যাগ করেছেন। রোববার আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বার্তা সংস্থা রয়টার্সের কাছে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে রয়টার্সকে তালেবানের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, তারা গনির কাবুল ছাড়ার সংবাদ যাচাই করছে।

এদিকে আফগানিস্তানের স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট গনির সাথে তার ঘনিষ্ঠ সহযোগীরাও দেশ ত্যাগ করেছেন।

এছাড়া ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহও আফগানিস্তান ত্যাগ করেছেন।

এর আগে আফগানিস্তানের প্রধান সব শহর দখলের পর রোববার কাবুলের প্রান্তে হাজির হয় তালেবান যোদ্ধারা। এর মধ্যে তালেবান ঘোষণা দেয়, তারা যুদ্ধের মাধ্যমে নয় বরং শান্তিপূর্ণভাবে আফগানিস্তানের ক্ষমতা হস্তান্তরের অপেক্ষা করছে।

কাবুলের প্রান্তে তালেবান যোদ্ধাদের অবস্থানের জেরে আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের দূত জালমে খলিলজাদ ও অন্য ন্যাটো কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করছিলেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি।

এর আগে শনিবার জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া এক টেলিভিশন ভাষণে আশরাফ গনি তালেবানের হামলার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেন।

২০০১ সালে তালেবান সরকারকে উৎখাত করে আফগানিস্তান মার্কিন বাহিনী দখল করলে ২০০২ সালে যুক্তরাষ্ট্র থেকে আফগানিস্তানের আসেন আশরাফ গনি। বিশ্বব্যাংকের সাবেক এই গভর্নর আফগানিস্তানের বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালনের পর ২০১৪ সালে এক নির্বাচনের পর আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

দীর্ঘ দুই দশক আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রাসনের পর ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে কাতারের দোহায় এক শান্তিচুক্তির মাধ্যমে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার করতে সম্মত হয় যুক্তরাষ্ট্র। এর বিপরীতে আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় অংশ নিতে তালেবান সম্মত হয়।

এই বছরের মে মাসে সৈন্য প্রত্যাহারের কথা থাকলেও মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন এপ্রিলে এক ঘোষণায় ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে সৈন্য প্রত্যাহারের কথা জানান। পরে জুলাই সময়সীমা আরো কমিয়ে এনে ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন তিনি।

মার্কিনিদের সাথে চুক্তি অনুসারে আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় সরকারের সাথে তালেবানের সমঝোতায় আসার কথা থাকলে কোনো সমঝোতায় পৌঁছাতে পারেনি দুই পক্ষ। সমঝোতায় না পৌঁছানোর জেরে তালেবান আফগানিস্তান নিয়ন্ত্রণে অভিযান শুরু করে।

৬ আগস্ট প্রথম প্রাদেশিক রাজধানী হিসেবে দক্ষিণাঞ্চলীয় নিমরোজ প্রদেশের রাজধানী যারানজ দখল করে তারা। যারানজ নিয়ন্ত্রণে নেয়ার ১০ দিনের মাথায় কাবুলের প্রান্তে এসে পৌঁছেছে তালেবান যোদ্ধারা।

সূত্র : আলজাজিরা, বিবিসি ও তোলো নিউজ

Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x