শুক্রবার | ২৫ জুন, ২০২১ | ১১ আষাঢ়, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > সাতক্ষীরা > সাতক্ষীরার তালায় ভন্ড হোমিও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

সাতক্ষীরার তালায় ভন্ড হোমিও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

সাতক্ষীরার তালায় ভন্ড হোমিও চিকিৎসকের বিরুদ্ধে অভিযোগ

তালা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার তালা উপজেলার শাহাজাতপুর গ্রামে নেশা জাতীয় হোমিওপ্যাথিক ঔষধ সেবন করে পলাশ খাঁন পল্টু (৪২) নামের এক যুবকের দুই চোখ অন্ধ হয়ে যায়। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৩ জুন) পলাশ খাঁন পল্টুর মা হালিমা বেগম বাদী হয়ে তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও তালা  থানায় একই গ্রামের দেবেন্দ্র দাসের ছেলে হোমিও চিকিৎসক সুনিল দাসের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

গত ২৪ মে (সোমবার) রাত ১০টায় হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন শাহাজাতপুর গ্রামের পলাশ খাঁন পল্টু। এসময় তিনি চোখে দেখতে পাচ্ছিলেন না বলে তার স্ত্রীকে জানান। তাৎক্ষণিকভাবে তাকে তালা হাসপাতালে এবং পরে সেখান থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। খুমেকের কর্তব্যরত চিকিৎসারা বলেন, তার চোখ দুটি পুরোপুরি অন্ধ হয়ে গেছে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, পলাশ খাঁন পল্টু দীর্ঘদিন যাবৎ অসুস্থ থাকার ফলে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক সুনিল দাসের কাছে চিকিৎসা নিতে যান। কথিত ডাক্তার সুনিল দাস তাকে সুস্থ করার আশ্বাস দিয়ে চিকিৎসা দিতে থাকেন। হোমিও চিকিৎসকের ঔষধ সেবনের পর রোগী পল্টুর ঠিকমতো ঘুম হতো না। ঘুম আসার জন্য সুনিল দাস অ্যালকোহল জাতীয় দুটি ফাইল প্রতিদিন তার বাড়িতে বসে খেয়ে যেতে বলতেন। এই ঔষধ খাওয়ার পর অল্প কিছুদিনের মধ্যেই তিনি পল্টু মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়েন।

ভূয়া হোমিও চিকিৎসক সুনিল দাস সম্পর্কে স্থানীয়রা জানান, এর আগে সুনিল ডাক্তারের ঔষধ পান করে মারা যান দক্ষিণ শাহাজাতপুর গ্রামের হরিপদ বাছাড়ের ছেলে কাপড় ব্যবসায়ী সনৎ কুমার বাছাড় (৩৮)।

এলাকাবাসী জানান, শাহাজাতপুর বাজারের হোমিও ঔষধের দোকানদার সুনীল দাসসহ কয়েকজন দীর্ঘদিন নেশা জাতীয় হোমিওপ্যাথিক ঔষধ বিক্রি করে আসছে। দোকানে দোকানে ঐ ঔষধ পৌঁছে দেয় একটি চক্র। আর উঠতি বয়সী যুবকরা নেশা হিসেবে পান করছে এসব হোমিও ঔষধ।

ডাক্তার সুনিল দাশ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছেন, আমি পলাশ খাঁন পল্টু কাছে কোন ঔষধ বিক্রয় করি নাই।

এদিকে তালা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তারিফ-উল-হাসান অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেন এবং প্রাথমিকভাবে তার চিকিৎসার জন্য দুই হাজার টাকা প্রদান করেন।

Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x