মঙ্গলবার | ৭ ডিসেম্বর, ২০২১ | ২২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > খুলনা > পাইকগাছায় ৩০ কেজি জাটকা জব্দ

পাইকগাছায় ৩০ কেজি জাটকা জব্দ

পাইকগাছায় ৩০ কেজি জাটকা জব্দ

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় জাটকা রক্ষা অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। রোববার সকালে মৎস্য দপ্তরের কর্মকর্তারা পৌর সদরের মৎস্য আড়ৎদারী মার্কেটে এ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় সরকারি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জাটকা বিক্রয়কালে ৩০ কেজি জাটকা জব্দ করা হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম এর নির্দেশনায় জব্দকৃত জাটকা এলাকার এতিমখানায় বিতরণ করেন সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা এসএম শহিদুল্লাহ, ক্ষেত্র সহকারী রণধীর সরকার ও রবিউল ইসলাম।

 

পাইকগাছায় পাবলিক লাইব্রেরী ও যাদুঘরের করুণ দশা

পাইকগাছা উপজেলা প্রশাসন ও পৌর সভার সমন্বয়হীনতার কারণে পাবলিক লাইব্রেরী ও যাদু ঘর ধ্বংসে উপক্রম হয়ে পড়েছে। পাঠক শুন্য হয়ে পড়েছে লাইব্রেরী।
পাইকগাছা পৌরসভার প্রাণকেন্দ্রে পাইকগাছা পাবলিক লাইব্রেরী ও যাদুঘর ১৯৮৫ সালে তৎকালীন উপজেলা চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট স ম বাবর আলী প্রতিষ্ঠা করেন। যার আজীবন সদস্য ১শ’৪৬ সাধারণ সদস্য ৯শ’৩৮ জন। দু’শ বই নিয়ে যাত্রা শুরু করে। পরবর্তীতে বই সংখ্যা ছিল ৫ হাজার। বর্তমান অনেক বই হারিয়ে গেছে। ১৫টি আলমারি, ২০খানা কাঠের চেয়ার, ৪টি টেবিল থাকলেও সবই প্রায় ব্যবহার অনোপযোগী। দেখানো হলেও তার সংখ্যা অনেক কম হবে। লাইব্রেরির ভবনটির অবস্থা খুই করুন। অনেক অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। প্রতিষ্ঠার পর থেকে ২-৩শ পাঠকের আনাগোনা থাকলেও বর্তমান তা পাঠকশূন্য হয়ে পড়েছে। মাঝে মধ্যে ২/১ জন পাঠক অতি প্রয়োজনে যায় বলে জানা যায়। বর্তমান লাইব্রেরিয়ান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ৮ বছর আগে আমাকে পৌরসভার মাধ্যমে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এখানে এসে যা পেয়েছি তা নিয়েই দায়িত্ব পালন করছি। এ ব্যাপারে পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ১৯৯৯ সালে পৌরসভা অলিখিতভাবে লাইব্রেরি ও যাদুঘর দেখাশুনার দায়িত্ব পায়। উপজেলা পরিষদ লিখিতভাবে হস্তান্তর না করায় অবকাঠামো কোন পরিবর্তন করা বা যাদুঘরের স্মৃতি নিদর্শন রক্ষণাবেক্ষণ করা সম্ভব হচ্ছে না। সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ও বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট স ম বাবর আলী বলেন, উপজেলা কর্মকর্তা অফিসারসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের নিয়ে এটা প্রতিষ্ঠা করি। যে উদ্দেশ্যে প্রতিষ্ঠা করেছিলাম আজ তা ধ্বংসের দার প্রান্তে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মমতাজ বেগম জানান, আমি এ উপজেলায় সদ্য যোগদান করেছি। বিস্তারিত খোঁজ খবর নিয়ে কিভাবে এর উন্নতি করা যায় সে ব্যাপারে পদক্ষেপ নেয়া হবে।

 

পাইকগাছায় মৃতপ্রায় শিবসা নদী খননের দাবীতে পানি কমিটির সভা
পাইকগাছা উপজেলা পানি কমিটির উদ্যোগে ত্রৈমাসিক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল ১০ টায় উপজেলার গদাইপুর ইউনিয়নের নতুন বাজার টাইগার স্পোর্টিং ক্লাবে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী। পলি পড়ে ভরাট হওয়া মৃতপ্রায় শিবসা নদী খননের দাবীতে সভায় বক্তব্য রাখেন, প্রোগ্রাম কর্মকর্তা দীলিপ সানা, স.ম. রেজাউল ইসলাম, কামারুজ্জামান মোড়ল, তোকাররাম হোসেন টুকু, লাভলু, উজ্বল কবির, এস,এম, আলাউদ্দিন সোহাগ, জিএম মিজানুর রহমান, তৃপ্তি রঞ্জন সেন, স্নেহেন্দু বিকাশ, কৃষ্ণ রায় ও সুকৃতি সরকার।

পাইকগাছায় ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্সের মৃত্যু দাবির চেক প্রদান
খুলনার পাইকগাছায় ফারইষ্ট ইসলামী লাইফ ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের মৃত্যু দাবী চেক প্রদান করা হয়েছে। পাইকগাছা জোনাল অফিসের উদ্যোগে রোববার সকালে জোনাল ইনচার্জ এমএ হাশেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মৃত্যুর দাবী চেক হস্তান্তর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, জোনাল ইনচার্জ (সাবী) মোঃ শফিকুল ইসলাম, আইটি কর্মকর্তা আব্দুর রউফ, ক্যাশ ইনচার্জ মোঃ রুস্তম আলী, নাসিমা খাতুন ও বেলাল হোসেন। উপজেলার খড়িয়া বাসাখালীরচক মরহুম রাশেদুজ্জামান গাজীর স্ত্রী জ্যোৎস্না খাতুনের হাতে ৩৩ হাজার ৫৯০ টাকা চেক দেওয়া হয়।

 

Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x