শুক্রবার | ২৫ জুন, ২০২১ | ১১ আষাঢ়, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > জাতীয় > বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটির ‘ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক’ প্রসেনজীৎ

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটির ‘ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক’ প্রসেনজীৎ

বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটির ‘ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক’ প্রসেনজীৎ

ন্যাশনাল ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয় গীতা স্কুল কেন্দ্রীয় কমিটি(BJGSKK) টির প্রতিষ্ঠাতা শ্রী প্রসেনজীৎ হালদারের কাজে অনুপ্রাণিত হয়ে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট তাকে কেন্দ্রীয় কমিটির “ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক” পদে সম্মানিত করা হয়েছে।
বাংলাদেশ জাতীয় গীতা স্কুল কেন্দ্রীয় কমিটি(BJGSKK) টির প্রতিষ্ঠাতা শ্রী প্রসেনজীৎ হালদার। তিনি নিজ উদ্যোগে ও নিজ অর্থায়নে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় ও বিভাগে এখন অব্দি ২৪ টি গীতা স্কুল পরিচালনা করছেন। তিনি মহামারী করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ এর কারণে এখন ও ২১ টি গীতা স্কুল চালু করতে পারছে না বলে জানান। তার ইচ্ছা তিনি ঢাকায় কেন্দ্রীয় একটি গীতা স্কুল/গীতা মন্দির, বাংলাদেশের ৬৪ জেলায় একটি করে গীতা স্কুল/গীতা মন্দিরসহ প্রতিটি মন্দিরকে গীতা শিক্ষার কেন্দ্র হিসাবে গড়ে তুলবেন ও গ্রাম বা শহরের অসহায় মানুষের সেবাই কাজ করবেন। তিনি মনে করেন ধর্মের অজ্ঞতার কারণে আমাদের সমাজের এই অবস্থা। তিনি বলেন সকল ধর্মই শান্তির ধর্ম আর সকল ধর্মই সুখ ও শান্তির বার্তা বহন করে। তিনি আরো বলেন সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে ধর্মের জ্ঞান অর্জন করতে। তিনি মনে করেন যদি তিনি সকলের মাঝে ধর্মের জ্ঞান প্রবেশ করাতে পারেন তাহলে তারা নিজের ধর্মের পাশাপাশি অন্যের ধর্মকে ভালোবাসবে। তখন সমাজ সুন্দরভাবে ভাবে পরিচালিত হবে। তার কথা হলো মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব তাই সকল মানুষকে ভালোবাসা উচিত সে যে ধর্মের হোক না কেনো। তার কাছে সনাতন, মুসলীম, বৌদ্ধ ও খ্রিষ্টান কোন ভেদাভেদ নেই। সকল মানুষই একই স্রষ্টার সৃষ্টি বলে মনে করেন। সৃষ্টির সেরা জীবকে ভালোবাসলে ঈশ্বরকে/সৃষ্টিকর্তাকে ভালোবাসা হয়। তিনি আরো বলেছেন, “যে ব্যক্তি নিজের ধর্মকে ভালোবাসে ও নিজের ধর্মের জন্য কাজ করে, সে কখনো অন্যের ধর্মকে অসম্মান করে না বা অন্যের ধর্মের কাজে বাঁধা সৃষ্টি করে না”। তার কাছ থেকে জানা যায় তার স্থানীয় বাসা সাতক্ষীরা জেলার কালিগঞ্জ থানার উজয়মারী গ্রামে জন্ম। তিনি এখন পড়াশুনার জন্য ঢাকাতে অবস্থান করছেন। তিনি বর্তমানে The Institute of Chartered Accountants of Bangladesh শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধীনে “সিএ” পড়াশুনা করছেন। তার এই কাজের অগ্রগতি, প্রচেষ্টা, মানসিকতা ও সাহসিকতার পরিচয় দেখে তাঁকে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি(BJHMKK) সন্তুষ্ট। তাই তাঁকে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটিতে ০১/০৬/২০২১ ইং তারিখে রাত্র আনুমানিক ১০.১৫ মিনিটে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট বিধান বিহারী গোস্বামী, নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট দীনবন্ধু রায়, দলটির বর্তমান মহাসচিব অ্যাডভোকেট গৌবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, দলটির বর্তমান যুগ্ম মহাসচিব রতন রায় চৌধুরী, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শ্রী নরেশ হালদার, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা অ্যাডভোকেট প্রতিভা বাকচীর অনুমতিতে ও ছাত্র মহাজোটের সভাপতি সাজেন কৃষ্ণ বল, প্রধান সমন্বয়কারী ধ্রুব বারুরী এবং সাধারণ সম্পাদক সজীব কুন্ডু(তপু) এর স্বাক্ষরে “ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক” পদে কেন্দ্রীয় কমিটিতে সম্মানিত করেছেন। এই সময় উপস্থিত থেকে তার হাতে বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু ছাত্র মহাজোটের স্বাক্ষরিত সনদ তুলে দেন, রতন রায় চৌধুরী, যুগ্ম-মহাসচিব(হিন্দু মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি), অ্যাডভোকেট প্রতিভা বাকচী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা(হিন্দু মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি), নরেশ হালদার, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক(হিন্দু মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি), সৈকত কুন্ডু, সাধারণ সম্পাদক( হিন্দু স্বেচ্ছাসেবক মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি) চয়ন বাড়ৈ, দপ্তর সম্পাদক(হিন্দু স্বেচ্ছাসেবক মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি), সাজেন কৃষ্ণ বল, সভাপতি(হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি) ধ্রুব বারুরী, প্রধান সমন্বয়কারী, (হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি) সজিব কুন্ডু তপু, সাধারণ সম্পাদক (হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি) স্বপন মধু, সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক (হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি), রনি রাজবংশী, প্রচার সম্পাদক (হিন্দু ছাত্র মহাজোট কেন্দ্রীয় কমিটি)। এই সময় উপস্থিত সকল গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ তার জন্য পরম করুণাময় ঈশ্বরের কাছে হাত জোড় করে প্রার্থনা করেন। যেনো তার ভবিষ্যৎ পথচলা সুন্দর ও স্বার্থক হয় সেই কামনা করেন। যে কোন প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন: ০১৭৬৭-৪৪৩৬৪৩ নম্বরে। সর্বদা আপনাদের সেবায় নিয়োজিত।

Share this:

কমেন্টস

Leave a comment

x