বুধবার | ১২ মে, ২০২১ | ২৯ বৈশাখ, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > নাটোর > ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ভিত্তিহীন: দাবি অভিযোগকারীদের

ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ভিত্তিহীন: দাবি অভিযোগকারীদের

ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ভিত্তিহীন: দাবি অভিযোগকারীদের
নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে অনিয়ম-দুর্নীতি, স্বেচ্ছাচারিতা ও অর্থ আত্মসাৎতের অভিযোগ ভিত্তিহীন, এমনটা  দাবী করে সংবাদ সম্মেলন করেছেন চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য  ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ । এসময় অভিযোগকারীরাই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবী করেন। অভিযোগকারীরা বলেন, আমাদেরকে মিথ্যা কথা বলে ভুল বুঝিয়ে স্বাক্ষর নিয়েছে কতিপয় ৩ ইউপি সদস্য।
 শুক্রবার দুপরে পরিষদ হলরুমে ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি  তোজাম্মল হক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে তার বিরুদ্ধে  অন্যায় ভাবে ষড়যন্ত্র ও মিথ্যাচার বন্ধ করতে প্রতিপক্ষকে অনুরোধ জানান। তিনি বলেন, আমার জনপ্রিয়তার প্রতি ঈর্ষান্বিত হয়ে এবং আগামী নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়ন বঞ্চিত করার প্রয়াসে  মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রতিপক্ষ কয়েকজন নোংরা খেলা খেলতে শুরু করেছে। আমি ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এই নোংরা খেলা বন্ধের দাবী জানাচ্ছি।  পাশাপাশি সুস্থ রাজনৈতিক চর্চায় অংশ নিয়ে আহ্বান জানাচ্ছি।
সংবাদ সম্মেলনে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম  জানান, কয়েকজন ইউপি সদস্য মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রতিপক্ষের মাধ্যমে প্রভাবিত হয়ে এই ইউনিয়নের জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ও আওয়ামীলীগ নেতা তোজাম্মেলের বিরুদ্ধে
স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব  ও নাটোরের জেলা প্রশাসক সহ প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে মিথ্যা অভিযোগ দায়ের করেছে।
এদিকে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত  অভিযোগকারী ৯ নং ওয়ার্ড সদস্য দুলাল হোসেন, ৭ নং ওয়ার্ড সদস্য  সেলিম হোসেন ও ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য জামিরুন বেগম জানান, আমরা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অভিযোগ পত্রটি না পড়ে স্বাক্ষর করেছি, আমাদেরকে ‘ সম্মানী ভাতার জন্য আবেদন’ এই কথা বলে স্বাক্ষর নিয়েছেন। চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে লেখা অভিযোগ ভিত্তিহীন।
উল্লেখ্য, গত বুধবার ইউপি চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হকের বিরুদ্ধে  সচিব সঞ্জয় কুমার চাকীর যোগসাজশে গত ৫ বছর ধরে ইউপি সদস্যদের সম্মানীভাতা বাবদ ৩২ লাখ টাকা প্রদান না করা এছাড়া  টিআর, কাবিখা, জিআর বরাদ্দসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে ইউপি সদস্যদের নামকেওয়াস্তে বাস্তবায়ন কমিটির সভাপতি বানিয়ে ভুয়া স্বাক্ষর করে অর্থ আত্মসাৎ করা, এলজিএসপি প্রকল্পে অতি নিম্নমানের কাজ করে অর্থ হাতিয়ে নেয়া সহ বেশ কিছু অভিযোগ দায়ের করে ইউনিয়ন পরিষদের কয়েকজন সাধারণ সদস্য ।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, ইউপি সচিব সঞ্জয় কুমার চাকী, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক আব্দুর রশিদ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক একাব্বর আলী মোল্লা, অর্থ সম্পাদক সুলতান মাহমুদ সহ ওয়ার্ড সদস্যরা।

কমেন্টস

Leave a comment

x