বুধবার | ২৮ অক্টোবর, ২০২০ | ১২ কার্তিক, ১৪২৭
সময় নিউজ ২৪ > বাগেরহাট > মোংলায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশং সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মোংলায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশং সমাবেশ অনুষ্ঠিত

মোংলায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশং সমাবেশ অনুষ্ঠিত
এম এইচ শান্ত, বাগেরহাট জেলা প্রতিনিধি:  “নিরাপদ নারী নিরাপদ দেশ,সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ”-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুূদন্ড, শ্লোগানে মোংলায় নারী ধর্ষন ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
শনিবার(১৭অক্টোবর)সকাল ১০টায় মোংলার ঐতিহ্যবাহী সরকারী টি,এ,ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ মিলনায়তনে এ সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।
 মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার চৌধুরী’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,মোংলা পৌর আওয়ামীলীগ এর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ আঃ রহমান
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন,মোংলা উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ইসরাত জাহান,মোংলা পৌর আওয়ামী লীগ এর সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শেখ কামরুজ্জামান জসিম, পৌর যুবলীগের সভাপতি এস,এম, কবির, সরকারি টি,এ, ফারুক স্কুল এন্ড কলেজ এর অধ্যক্ষ আলহাজ্ব আবূ সাঈদ খাঁন, সাংবাদিক জসিম উদ্দিন, সাংবাদিক আবু হোসেন সুমন।
এসময় বক্তারা বলেন,দেশে ধর্ষনের মত ঘৃণিত অপরাধ বৃদ্ধি পেয়েছে সেই সাথে এই বিষয়ে মিথ্যাচার বৃদ্ধি পেয়েছে।চলমান পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যু দন্ডের প্রণয়ন করেছে সরকার।
এসময় অফিসার ইনচার্জ ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, বিট পুলিশং এর মূল লক্ষ হচ্ছে ছোট ছোট ঘটনাগুলো যেন বড় অওরাধে রূপ না নেয় এবং পুলিশের সেবা পেতে জনসাধারণের যাতে ভোগান্তি না হয়।
থানায় যে সব ধর্ষণ ও অপহরণের মামলা হয় এর সবই কিন্তু প্রকৃত ঘটনার আলোকে নয়।অনেক সময় দেখা যায়,মেয়ে বা মহিলা পরিস্থিতি স্বীকার হয়ে বা নিজের স্বামীর সংসার টিকিয়ে রাখতে এবং পরকিয়া প্রেম গোপন রাখতে নিজে নির্দোষ প্রমাণ করতে থানায় এসে ধর্ষনের মামলা দায়ের করে।আবার অপ্রাপ্ত ও প্রাপ্ত বয়স্ক ছেলে মেয়েরা প্রেম করে পালিয়ে বিয়ে করলে বা বিয়ে করার চেস্টা করলে অভিভাবকরা এসে অপহরণের মামলা দায়ের করে।
তবে প্রকৃত ধর্ষণের জন্য যেমন বিকৃত মানুষিকতা দায়ী তেমন অরুচিশীল পোশাকাদি ও উশৃঙ্খল চলাফেরা  অনেকাংশ দায়ী।তবে সার্বিক ভাবে দেশে ধর্ষনের অপরাধ বৃদ্ধি পেয়েছে।আমাদের সকলের সচেতনতাই এসব অপরাধ রুখতে সক্ষম হবে।
সমাবেশে আগতরাও ধর্ষণ ও নারী নিযার্তন রোধে করণীয় নানা মতামত তুলে ধরেন। সমাবেশে বিপুল সংখ্যক নারী-পুরুষ ও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। এরপর পযার্য়ক্রমে দিগন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও সেন্ট পলস উচ্চ বিদ্যালয়সহ ১০টি ভেন্যুতে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সমাবেশে পুরুষের পাশাপাশি নারীদের উপস্থিতিও ছিল চোখে পড়ার মত।

কমেন্টস

Leave a comment