শুক্রবার | ২৩ এপ্রিল, ২০২১ | ১০ বৈশাখ, ১৪২৮
সময় নিউজ ২৪ > সিলেট > শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর পরিদর্শনে র‌্যাব ডিজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন

শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর পরিদর্শনে র‌্যাব ডিজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন

শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘর পরিদর্শনে র‌্যাব ডিজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন
মুহিবুর রেজা টুনু, সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের নোয়াগাঁও গ্রাম দেখতে গিয়ে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন বলেন, ’শাল্লায় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলাকারীদের রক্ষা নেই। যারা দীর্ঘদিনের এই সম্প্রীতির শাল্লায় সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টি করে গোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছেন তা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের আমলে কোনভাবেই কাম্য নয়। র‌্যাব সব সময়ই দেশে যতবড় অপরাধ সংঘটিত হোক না কেন বড় বড় অপরাধিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনতে সক্ষম হয়েছে। তিনি বলেন ইতিমধ্যে র‌্যাব ও পুলিশ বিষয়টি নিয়ে তদন্তে মাঠে নেমেছে পাশাপাশি সাদা পোশাকের সদস্যরা ও কাজ করছেন। তিনি উপস্থিত সকলকে আশ^স্থ করে বলেন যারা নয়াগাঁও গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িঘরে হামলার সাথে প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে জড়িত রয়েছেন তাদের সকলকে আইনের আওতায় আনা হবে। এখানে হিন্দু মুসলিম আর অন্যান্য সম্প্রদায় বলে কথা নেই। আমরা ছোটকাল থেকে এই হাওর পাড়ে বড় হযেছি উল্লেখ করে ডিজি আরো বলেন একটি গোষ্টি পেছন থেকে উস্কানী দিচ্ছেন শান্ত এলাকাকে অশান্ত করার জন্য। তিনি হুশিয়ারী উচ্চারন করে আরো বলেন এখানে হিন্দুদের যেকোন আচার অনুষ্ঠানে আমাদের মুসলিমভাইয়েরা অংশ করে আসছি আর আমাদের মুসলিম সম্প্রদায়ের যেকোন অনুষ্ঠানে হিন্দু  ভাইরা আসছেন। বাংলাদেশের মধ্যে অনন্য একটি দৃষ্টান্ত এই শাল্লা  উপজেলা একটি সম্প্রীতির উপজেলা বলে উল্লেখ করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) সকাল ১১টায় হেলিকপ্টারযোগে নোয়াগাঁও গ্রামে যান র‌্যাবের ডিজি। এসময় র‌্যাবের মহাপরিচালক বলেন, ‘দেশে যখনই কোনো ঘটনা ঘটেছে সরকার দ্রæত সেই বিষয়ে ব্যবস্থা নিয়েছে। এটি নিঃসন্দেহে নিন্দাজনক। এমন ঘটনা আমরা বরদাশত করবো না।’এ ঘটনার বিষয়ে নোয়াগাঁও গ্রামের বাসিন্দারে উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, ‘আমি আপনাদের আশ্বস্থ করতে চাই,আমরা এ ঘটনা জানার পরপরই এখানে এসেছি। আমাদের হিন্দু ভাইয়েদের ওপর হামলা হয়েছে। এটা ন‌্যাক্কারজনক। এ ঘটনায় আমি লজ্জা পেয়েছি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন,পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান,শাল্লা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো, আল আমীন চৌধুরী, র‌্যাব ৯ এর সুনামগঞ্জ অঞ্চলের কোম্পানী কমান্ডারসহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গরা।
উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার(১৬ মার্চ) রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম(ফেইবুকে)হেফাজত ইসলামের কেন্দ্রীয় নেতা মামুনুল হককে নিয়ে কটূক্তি করেছিলেন স্থানীয় নোয়াগাঁও গ্রামের গোপেন্দ্র দাসের ছেলে ঝুটন দাস আপন। এর বিষয়টি স্থানীয়ভাবে ভাইরাল হলে পুলিশ জনতার সহযোগিতায় মঙ্গলবার(১৬ মার্চ) রাতেই শাসখাই বাজার থেকে তাকে আটক করে পুলিশ। এই কটূক্তির ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার(১৭ মার্চ) সকালে উপজেলার হবিবপুর ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের মমিনুল হকের অনুসারীরা লাঠিসোটা ও দাড়াঁলো অস্ত্র নিয়ে নোয়াগাঁও গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের অর্ধশতাধিক বাড়িঘরে হামলা,ভাংচুর ও লুৃটপাঠ করেছে দুর্বৃত্তরা।

কমেন্টস

Leave a comment

x