বুধবার | ২১ অক্টোবর, ২০২০ | ৫ কার্তিক, ১৪২৭
সময় নিউজ ২৪ > সাতক্ষীরা > শ্যামনগরে অবৈধভাবে ভিটা ও মৎস্য ঘের দখলের অপচেষ্টা, মাছ ও মালামাল লুটপাট

শ্যামনগরে অবৈধভাবে ভিটা ও মৎস্য ঘের দখলের অপচেষ্টা, মাছ ও মালামাল লুটপাট

শ্যামনগরে অবৈধভাবে ভিটা ও মৎস্য ঘের দখলের অপচেষ্টা, মাছ ও মালামাল লুটপাট

এসএম মোস্তফা কামাল, শ্যামনগর (সাতক্ষীরা): শ্যামনগরের আবাদচন্ডীপুরে জমি বিরোধকে কেন্দ্র করে বসতভিটা সংলগ্ন মৎস্য ঘের প্রতিপক্ষরা দখল করে নেওয়ার অপচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে।সরোজমিনে জানা যায়, জমি ক্রেতা হলেন- আবাদচন্ডিপুর গ্রামের মৃত আব্দুস সবুর গাজীর পুত্র আলহাজ্ব মাওঃ আব্দুল হাদী। তিনি জানান, তার প্রতিবেশী একই গ্রামের মৃত অয়েজউদ্দীন গাজীর পুত্র সৈয়েদুল ইসলাম ওরফে ভোলা জমি রেজিষ্ট্রি করে দেওয়ার নামে ছল চাতুরের আশ্রয় নিয়ে প্রতারণা করেছে। জমি রেজিষ্ট্রির জন্য অগ্রীম ৫০ হাজার টাকা প্রতারনা করে হাতিয়ে নিয়েছে সৈয়েদুল ইসলাম ওরফে ভোলা। অগ্রীম ৫০ হাজার টাকা নিয়ে বকেয়া টাকা না নিয়ে জমি রেজিষ্ট্রি করে দিতে করছে তালবাহানা। অগ্রিম টাকা ও দলিল রেজিষ্ট্রি খরচ ফেরত চাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছে জমি ক্রেতা আলহাজ্ব মাওঃ আব্দুল হাদী। তাছাড়া পৈত্রিক ও খরিদা সূত্রে বাস্তু ভিটা জমি নিয়ে বিরোধকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষ সৈয়েদুল ইসলাম ওরফে ভোলা অবৈধভাবে জমি দখলের অপচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, ১৬ অক্টোবর আনুঃ সকাল ৬টার দিকে একই গ্রামের মৃত অয়েজউদ্দীন গাজীর পুত্র সৈয়েদুল ইসলাম ওরফে ভোলা, নুরুল আমিন সহ তাদের সহযোগী ৮/১০ জনের বিরুদ্ধে পরিকল্পিতভাবে অবৈধভাবে লাভ ও লোভের বশবর্তী হয়ে আব্দুল হাদীর বসত ভিটার সীমানা নেট জাল,খুঁটি ও মৎস্য ঘেরের বেড়ীবাঁধ ভাংচুর করে একাকার করে দেয়।এতে আব্দুল হাদীর কয়েক লক্ষ টাকার মৎস্য ও মালামালের ক্ষতি সাধিত হয়।
আব্দুল হাদী কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে প্রায়ই সময় সাতক্ষীরা ও ঢাকায় অবস্থান করায় ভোলা ও নুরুল আমিন যোগসাজসে আব্দুল হাদীর বসত ভিটার পশ্চিম সীমানার পাঁকা প্রাচীর ভাংচুর, বিভিন্ন প্রজাতীর বৃক্ষ কর্তন ও মাটি কর্তন করে জবর দখলের অপচেষ্টার বিরুদ্ধে থানায় জিডি ও অভিযোগ করা হয়েছিল তাদের বিরুদ্ধে। আব্দুল হাদীর সহোদর বোন ফজিলা খাতুন ও ভগ্নিপতি আবুবক্কর সিদ্দিক জবর দখলের প্রতিবাদ করায় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে মারপিট ও খুন জখমের আশু সম্ভাবনার সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে এ বিরোধে আব্দুল হাদীর উপর বিভিন্ন সময়ে তারা চড়াও হয়। আব্দুল হাদী ও তার পরিবারকে জীবন নাশের হুমকি, মারপিট, রেকর্ডীয় ও ভোগদখলীয় সম্পত্তির জবর দখল, মূল্যবান জিনিস পত্র ক্ষয়ক্ষতি/আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠে। তাদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা সহ একাধিক মামলা ও অভিযোগ রয়েছে। আব্দুল হাদী, তার বোন ও তার ভগ্নিপতি দারুন নিরাপত্তাহীনতা ভুগছেন। অথচ এ জমি নিয়ে উচ্চ আদালতে নিষেজ্ঞা থাকা সত্বেও তা উপেক্ষিত করে সৈয়েদুল ওরফে ভোলা দখল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।সৈয়েদুল ইসলাম ওরফে ভোলা জানান, এ জমি নিয়ে বিজ্ঞ আদালতে মামলা বিচারাধীন ।
এ ঘটনায় শ্যামনগর থানা অফিসার ইনচার্জ নাজমুল হুদা জানান,এখনও পর্যন্ত লিখিত অভিযোগ পাইনি, পেলে যথাযথ তদন্ত সাপেক্ষে আইনী প্রক্রিয়া চলমান থাকবে।

কমেন্টস

Leave a comment